কালিয়াকৈরে আসামি পক্ষের লোক দ্বারা মামলার বাদীকে হুমকির আভাস

কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি:
গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার ফুলবাড়ীয়া ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের বাশাকৈর গ্রামের ২৬/১০/২০১৯ইং তারিখে সকাল আনুমানিক ৮:৩০ মিনিট মৃত মোঃ আঃ কদ্দুস এর দুই পুত্রের মধ্যে জমি নিয়ে বিরোধ হলে মৃত মোঃ আঃ কদ্দুসের পুত্র মোঃ বাহারউদ্দিন ( ৫০) গুরুতর আহত হন, এবং মাথা ও হাতে ধারালো অস্ত্রের আগাত প্রাপ্ত হন।স্থানীয় এলাকাবাসীর সহযোগিতায় বাহারউদ্দিনকে কালিয়াকৈর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তী করেন । কর্তব্যরত চিকিৎসক আহত বাহারউদ্দিন কে ২৬/১০/২০১৯ ইং হইতে ১/১১/২০১৯ ইং তারিখ পর্যন্ত চিকিৎসা প্রদান করে থাকেন, এমতবস্থায় আহত বাহারউদ্দিন বাদী হয়ে কালিয়াকৈর থানায় চার( ৪)জনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেন। যার আসামি গণ হলেন: ১। মোঃ কামাল হোসেন (২০),পিতাঃ মোঃ ফজল হক, ২। মোঃফজল হক (৬০),পিতা মৃত মোঃ আঃ কুদ্দুস,
৩।মোঃ জুলহাস (৩৫), পিতা মৃত মোঃ আঃ কদ্দুস, ৪। হাবিবুর(৩৫), পিতা ফজল হক, উক্ত মামলার ১ নং আসামী কামাল কে কালিয়াকৈর থানাদীন ফুলবাড়ীয়া পুলিশ ফাঁড়ির দায়িত্বপ্রাপ্ত অফিসার ইনচার্জ জনাব আব্দুস সালাম গ্রেপ্তার করিয়া গাজীপুর জেল-হাজতে প্রেরন করিলে,

আসামীপক্ষ মামলার জামিন মঞ্জুর করিয়ে বাদী মোহাম্মদ বাহার উদ্দিন কে পুণরায় মারধোর ও মেরে ফেলার হুমকি প্রদান করেছে বলে জানান বাদীপক্ষ মোঃ বাহার উদ্দিন ।
এবিষয়ে মামলার ১ নং আসামী কামালের সাথে মোবাইল ফোনের যোগাযোগ মাধ্যমে জানা যায় যে, কামাল ও তার পরিবারের পক্ষ থেকে কোন প্রকার হুমকি প্রদান করেননি, কিন্তু মামলার বাদী বাহার উদ্দিনের সাথে সামনাসামনি দেখা হলে কিছু প্রশ্নের মুখোমুখি হবে বলে জানান।

মামলার বাদী বাহার উদ্দিন বলেন তাহার নিজ বাড়ি হইতে আনুমানিক ৫০০গজ উত্তর পাশে ২১৬ দাগের ২১ শতাংশ জমি পৈত্রিক সূত্রে মালিক হইয়া ১০ বছর যাবৎ ভোগ দখল করিয়া আসিতেছে উক্ত জমির গাছ বিক্রি করিয়া গাছের গোড়ার অংশ (মোথা)তুলে ফসলি জমিতে পরিণত করতে গেলে এরকম ভয়াবহ আপত্তিকর ঘটনা ঘটে বলে জানান।

মামলার বাদী বাহার উদ্দিন আরও বলেন স্থানীয় প্রশাসনের সহযোগিতা ক্রমে সঠিক তদন্ত মোতাবেক ন্যায়বিচার ও সুষ্ঠু সমাধানের আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

স্থানীয় ভাবে বারবার নির্বাচিত মেম্বার লোকমান হোসেনের বক্তব্যে উঠে আসে যে, ২১ শতাংশ জমি নিয়ে তাহাদের মধ্যে দীর্ঘদিন যাবৎ বিরোধ চলতেছিল।

স্থানীয়ভাবে সালিশি বিচারের মধ্য দিয়ে বাহারউদ্দিন কে জমি ও গাছের মালিক সাব্যস্ত করে দিয়ে আসেন।
উক্ত জমিতে গাছ কেটে নেওয়ার পর গাছের মোথার (গোরার) অংশ তোলার জন্য বাহার উদ্দিন বৃহস্পতিবার সকালে ঘটনাস্থলে গেলে কামাল ও তার পিতা ফজল সিকদার তাকে নিষেধ করিলে। দু’পক্ষের পাল্টা আক্রমণে বাহারউদ্দিন মাথায় ও হাতে রক্তাক্ত কাটা জখম হয়।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।