অবৈধভাবে বালু তুলে শেষ মতলব উত্তর একসময় হবে নদীগর্ভে বিলীন আর নিরুদ্দেশ।

বিশেষ প্রতিনিধি:

 

অবৈধ ভাবে রাতের আধারে মতলব উত্তর চাঁদপুর এর বিভিন্ন এলাকায় নদীতে কে বা কারা বালু তুলছে এ,জানা যায়নি ।

প্রতিদিন রাতেই চলে ২০০ থেকে ৩০০ জাহাজ ভর্তির কাজ বালি দিয়ে।

কে বা কারা রাতের আধারে অবৈধভাবে বালি কেটে নিয়ে যাচ্ছে তা যেন ধরাছোঁয়ার বাইরে।

আমাদের বিশেষ প্রতিনিধির মাধ্যমে আমরা জানতে পারি মতলব উত্তর চাঁদপুর এর বিভিন্ন এলাকায়  এখনো বন্ধ হয়নি বালি কাটা অবৈধভাবে।

হাইকোর্টের নির্দেশ অমান্য করে রাতের আঁধারে চোরাকারবারী চক্রের সদস্যরা বালি কেটে বিক্রি করে দিচ্ছে কোটি কোটি টাকা এ দিক থেকে রাজস্ব হারাচ্ছে বাংলাদেশ সরকার।

দেখার যেন কেউ নেই নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যাচ্ছে এলাকার আবাদি জমির ফসল মাঠ।

এলাকার বিভিন্ন মানুষের কাছ থেকে আমরা জানতে পারি কিছু কুচক্রী মহল রাতের আধারে বালি কেটে নিচ্ছে নদী থেকে অবৈধভাবে।

এই বালিকা টার জন্য অনেক কৃষক তার হারিয়েছে কৃষিজমি।

অনেক মানুষ হয়েছে গৃহহারা বালি কাটার ফলে নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে অনেক মানুষের বাপ-দাদার পৈত্রিক সম্পত্তি ও ঘরবাড়ি।

সাধারন জনগনের একটাই দাবি অবৈধ বালি কাটা যেন বন্ধ করা হয় খুব দ্রুত সময়ে।

অবৈধ ব্যবসার জন্য কোন শেষ নেই অবৈধভাবে তেলের ব্যবসা করছে রাতের আধারে কিছু লোক অবৈধ তেলের ব্যবসা করে অনেকেই।

অবৈধ ব্যবসার মধ্যে অবৈধভাবে তেল এবং বিভিন্ন দ্রব্যাদি জাহাজ থেকে নামায় কিছু প্রভাবশালী লোক।

এদিকে সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন এলাকার সাধারণ জনগণ যাতে তাদের এই দুর্ভোগ খুব দ্রুত সময়ে লাঘব করা হয়।

 

 

 

 

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।