ঐক্যফ্রন্টের একটি প্রস্তাব সরাসরি নাকচ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দ্বিতীয় দফা সংলাপে ১০ সদস্যের নির্দলীয় নিরপেক্ষ নির্বাচনকালীন সরকারের একটি প্রস্তাব দিয়েছেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ড. কামাল হোসেন। কিন্তু আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে সেটি সরাসরি নাকচ হয়ে যায় বলে বৈঠক সূত্রে জানা গেছে।

বুধবার গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে ১৪ দলের সঙ্গে ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে ঐক্যফ্রন্টের সংলাপে এ প্রস্তাব দেওয়া হয়।

বৈঠক সূত্র জানায়, ঐক্যফ্রন্টের ১০ সদস্যের নির্দলীয় নিরপেক্ষ নির্বাচনকালীন সরকারের প্রস্তাবে জবাবে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে বলা হয়, এটা সংবিধানসম্মত না। এই দাবি মেনে নিলে সাংবিধানিক শূন্যতা সৃষ্টি হবে। এ সুযোগে তৃতীয় পক্ষে ঢুকে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে।

এছাড়া, খালেদা জিয়ার মুক্তি, প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ ও সংসদ ভেঙে দেওয়া এবং নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠনের প্রস্তাব দেওয়া হয়। বেলা সোয়া দুইটার দিকে ঐক্যফ্রন্ট নেতারা গণভবন থেকে বের হন।

পরে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। এ সময় রাজবন্দীর মুক্তি এবং লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড প্রস্তুতসহ ঐক্যফ্রন্টের দাবি দাওয়া মেনে নেওয়া হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, তাদের দাবি-দাওয়া মেনে নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তবে তারা আজকে আরও কিছু দাবি দাওয়া তুলে ধরেছেন।

 

 

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।