ব্যক্তি নয়, ধানের শীষ প্রতীকের হয়ে কাজ করবে সোনারগাঁ থানা ছাত্রদল

স্টাফ রিপোর্টারঃ সারাদেশের মতো জাতীয় নির্বাচনের হাওয়া বইতে শুরু করেছে নারায়নগঞ্জ -৩ (সোনারগাঁ) আসনের অন্তর্ভূক্ত বিএনপি নেতাকর্মীদের মাঝেও।
ইতিমধ্যে বিএনপির মনোনয়ন প্রাপ্তির লক্ষ্যে এ আসন থেকে দলীয় মনোনয়ন পেতে ১৮ জন ক্রয় করেছেন মনোনয়ন পত্র।
সাক্ষাতকারও সেরেছেন প্রায় সকলেই।
মনোনয়ন পাওয়ার আশাবাদও ব্যক্তয় করছেন সব প্রার্থীরাই।

দলের অন্যান্য অঙ্গ সংগঠনের ন্যায় সোনারগাঁ থানা ছাত্রদলেও বইতে শুরু করেছে ভোটের বাতাস।
কেউ কেউ প্রাধান্য দিয়ে মনে মনে পছন্দের প্রার্থীকে এগিয়ে রাখলেও থানা ছাত্রদলের মুখ্য সকল নেতারাই ব্যক্তি নয়, বরং দলকে প্রাধান্য দিয়ে, প্রতীকের জন্য কাজ করার ইচ্ছাই পোষন করছেন।
বিগত এক যুগ যাবত ক্ষমতার বাইরে থাকা এ দলটির জন্য এ সময়ে কোনো গ্রুপিং, কোন্দল বা ব্লক হয়ে ঐক্যবদ্ধতা ছেড়ে কাজ করা দলের জন্য নেতিবাচক হবে বলে মনে করছেন থানা ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা।
প্রত্যেকটা নেতাকর্মীই মনে করছেন,
ব্যাক্তি নয়, প্রতীকটাই আমাদের প্রেরণার মূল লক্ষ্য হওয়া উচিত এবং হবেও তাই ।
ফলে এ আসন থেকে বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশী ১৮ জনের মধ্যে যেই পাক দলীয় মনোনয়ন সকলে ব্যক্তি কেন্দ্রীক জটিলতা ভূলে দলের জন্য শুধুমাত্র ধানের শীষকে প্রাধান্য দিয়ে কাজ করার ইচ্ছা ব্যক্তয় করেছেন।
থানা ছাত্রদল নেতা মোজাম্মেল হক বলেন,
আমরা কোন ব্যক্তিকে পছন্দ করি, আর কোন ব্যক্তিকে পছন্দ করি না, সেটা এখন দেখার সময় নেই। প্রত্যেকেরই লক্ষ্য হওয়া উচিত ধানের শীষকে বিজয়ী করার জন্য কাজ করে যাওয়া এবং আমরা তাই করবো।
থানা ছাত্রদলের আরেক নেতা রুবেল হোসাইন বলেন,
পছন্দ অপছন্দের ব্যক্তি থাকতেই পারে, কিন্তু তাই বলে সবাই তো আর মনোনয়ন পাবে না, আমরা দলের স্বার্থে দলীয় নীতি নির্ধারকেরা যাকে প্রতীক দেবেন আমরা তার হয়েই কাজ করে যাবো ভোটের মাঠে, এবং ধানের শীষের বিজয় নিয়ে আসবো।

সোনারগাঁ থানার আরেক ছাত্রদল নেতা কাজী হিমেল নির্বাচন প্রসঙ্গে বলেছেন,
যারা মনোনয়ন প্রত্যাশী তারা প্রত্যেকেই বিএনপির।
কিন্তু দলীয় মনোনয়ন তো পাবেন এ আসন থেকে মাত্র ১ জন।
সে যেই হোক, ইনশা আল্লাহ আমরা তার হয়েই কাজ করবো।

ছাত্রদলের আরেক নেতা তরিকুল ইসলাম সরকার বলেন,
আমরা ব্যক্তি কে? সেটা দেখতে চাই না, আমরা প্রতীক দেখেই কাজ করবো। দলের হাই কমান্ড থেকে নিশ্চই যোগ্য লোককেই মনোনয়ন দেবেন। আমাদের সকলেরই দলের প্রতি আস্থা আছে।

থানা ছাত্রদল নেতা ইকবাল প্রধান বলেছেন,
ব্যক্তি নয়, প্রতীকই হবে আমাদের কাছে সব। আমরা ধানের শীষের হয়েই কাজ করবো ছাত্রদলের সকলে।
এ ছাড়াও থানা ছাত্রদল নেতা নেতা জিয়াউল হক, মোহাম্মাদ সাইফুল ইসলাম ও জুয়েল সরকার প্রার্থী দেখে নয় বরং প্রতীক দেখে ধানের শীষের পক্ষে কাজ করারই অঙ্গীকার করেন।

আর ব্যাক্তিকে নয় বরং ধানের শীষ প্রতীককে প্রাধান্য দিয়েই থানা ছাত্রদলের সকল নেতাকর্মীরা কাধে কাধ মিলিয়ে একইসঙ্গে স্বতঃস্ফূর্তভাবে নির্বাচনে কাজ করে যাবে বলে আশা ব্যক্তয় করেন থানা ছাত্রদল নেতা সাইদ ফরহাদ, আবুল হাসনাত, সাহাজউদ্দিন, পলাশ শিকদার সহ সকলে ।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।