তাবলীগের দুপক্ষের সংঘর্ষে একজন নিহতের ঘটনায় ভোলায় বিক্ষোভ মিছিল।

মো.সাইফুল ইসলাম#ভোলা:পাশের দেশ ভারতের মাওলানা সা’দ এবং অন্য গ্রুপের সঙ্গে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে চলছে তাবলীগ জামাতের মধ্যে দ্বন্দ্ব। সবশেষ এবছর তাবলীগ জামাতের বিশ্ব ইজতেমার আগে হওয়া জোড় ইজতেমা নিয়ে এই দ্বন্দ্বের সূত্রপাত ঘটে।সা’দপন্থীদের দাবি, দীর্ঘদিন ধরে তারা উভয়পক্ষ জোড় ইজতেমা আলাদাভাবে করে আসছেন। এবার ৩০ নভেম্বর থেকে ৪ ডিসেম্বর পর্যন্ত তাদের জোড় ইজতেমা করার কথা এবং ৭ ডিসেম্বর থেকে অন্যপক্ষের জোড় ইজতেমা হওয়ার কথা। কিন্তু হঠাৎ করে তাদেরকে বাধা দেয়া হয়েছে।তবে সা’দের প্রতিপক্ষ গ্রুপের অভিযোগ, তাবলীগ জামাতের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি করতে তৎপর সা’দ গ্রুপ। তারা ইজতেমার ময়দান দখল করে রেখেছে অবৈধভাবে।।বিশ্ব ইজতেমায় আধিপত্য নিয়ে দু’পক্ষের সংঘর্ষে ইসমাইল মন্ডল নামে মুন্সিগঞ্জের একজনের মৃত্যু হয়। এসময় ইজতেমা ময়দানের এক নম্বর গেটে পাল্টাপাল্টি ধাওয়ায় আহত হয়েছে অর্ধশতাধিক। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে বিমানবন্দর এলাকায়ও দু’গ্রুপের সংঘর্ষ হয়।আর একজন মৃত্যুর ঘটনাকে কেন্দ্র করে ৩ ডিসেম্বর (সোমবার) ভোলায় আয়োজিত হয় বিক্ষোভ মিছিল। মিছিলে অংশগ্রহন করে ভোলার তাবলীগ জামায়েতের লোক।ভোলা সদর মার্কাজ (কাবিল মসজিদে) সবাই সমবেত হয় এবং সেখান থেকে মিছিল শুরু করে ভোলার প্রধান প্রধান সড়কগুলো প্রদক্ষিন করে আবার কাবিল মসজিদের কাছে এসে মিছিল শেষ করে।তাদের দাবী ছিল ঘটনার সাথে জরিতদের ফাঁসি।যাদের জন্য ঝরে গেল একটি প্রান।এবং তারা চান নিজেদের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝি মিটিয়ে নিতে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।